Monday, September 23, 2019 10:17 pm
Spread the love

ঢাকা : ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে সারাদেশে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন করা হয়েছে। বিভিন্নস্থান থেকে বাসস প্রতিনিধির পাঠানোর খবর :
যশোর : বর্ণ্যাঢ্য র‌্যালি করেছে জেলা প্রশাসন। সকাল ৯ টায় কালেক্টরেট চত্বর থেকে র‌্যালিটি বের হয়। এতে সদর আসনের সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ, জেলা প্রশাসক আব্দুল আওয়াল, পুলিশ সুপার মঈনুল হক, শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা সাধরন কুমার দাস শিমুদের সাথে নিয়ে শহরের বকুল তলা মোড়ে স্থাপিত জাতির জনকের ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পরে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. আনোয়ার হোসেন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুজ্জামান পিকুলসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন ও স্কুল কলেজের পক্ষ থেকে ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণ কারা হয়। পরে জিলা স্কুল অডিটোরিয়ামে অনু্িঠত হয় বঙ্গবন্ধুর জীবনী ভিত্তিক আলোচনাসভা ও পুরস্কার প্রদান অন্ঠুান। জেলা প্রশাসন আয়োজিত এ আলোচনাসভায় সভাপতিত্বে করেন জেলা প্রশাসক আব্দুল আওয়াল। প্রধান অতিথি ছিলেন সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সালাউদ্দিন শিকদার। বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন,মুজিব বাহিনীর প্রধান আলী হোনে মনি,প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন ও জেলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক গোলাম আজম। অনষ্ঠাটি পরিচালনা করেন জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা সাধর কুমার দাস। পরে শিশু একাডেমির ক্ষুদে শিল্পীদের অংশ গ্রহণে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
নওগাঁ : জেলা প্রশাসনের গৃহিত কর্মসূচীর অংশ হিসেবে সকাল সাড়ে ৯টায় জিলা স্কুল মাঠ থেকে একটি বর্নাঢ়্য বিশাল শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে কে ডি সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের বি টিম মাঠে এসে শেষ হয়। এতে নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসক মোঃ মিজানুর রহমান।
পরে সেখানে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক মোঃ মাহবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে আয়োজিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মোঃ মিজানুর রহমান । বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মোঃ ইকবাল হোসেন পিপিএিম, অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ শরিফুল ইসলাম খান ও জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ উত্তম কুমার দাস। শিক্ষার্থীদের মধ্যে হাসিব বিন আব্দুল হাই বক্তব্য রাখেন। এ সময় মঞ্চে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাশিদুল হক এবং স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক গোলাম মোঃ শাহনেওয়াজ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।
এ অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসন ও জেলা শিল্পকলা একাডেমি আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ এবং চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পরস্কার বিতরণ করা হয়।
সব শেষে জেলা শিশু একাডেমি এবং জেলা শিল্পকলা একাডেমি পৃথক পৃথক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করে। এ উপলক্ষে বিকেলে এটিম মাঠে ঐতিহ্যবাহি ঘুড়ি উড়ানো প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।
বগুড়া : বগুড়া জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সকালে র‌্যালি শহর প্রদক্ষিণ করে। এর আগে সকালে বগুড়া জিলা স্কুলে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন বগুড়া জেলা প্রশাসক মোঃ ফয়েজ আহাম্মদ, জেলা পুলিম সুপার আলী আশরাফ ভূঞা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আলীমুন রাজিব, জেলা পরিষদের চেয়াম্যান ডাঃ মকবুল হোসেন, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান মজনু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহমান রিপু।
পরে বগুড়া প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ক্লাব মিলনায়তনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। ক্লাবের সহ-সভাপতি আব্দুল মোত্তালেব মানিকের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন ক্লাবের সধারণ সম্পাদক মাহমুদুল আলম নয়ন, আব্দুস সালম বাবু, শফিউল আলম কমল,আমজাদ হোসেন মিন্টু, আখতারুজ্জামান,সাজ্জাদ হোসেন পল্লব,সাজেদুর রহমান সিজু, আব্দুর রহমান টুলু, এইচ আলিম প্রমুখ। পরে শিশু একাডেমির উদ্যোগে শিশুদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।
ভোলা : সকাল সাড়ে ৮টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে র‌্যালি বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদিক্ষণ করে একই স্থানে শিশু সমাবেশে মিলিত হয়।
র‌্যালিতে জেলা প্রশাসক মো: মাসুদ আলম সিদ্দক, পুলিশ সূপার মো: মোকতার হোসেন, সিভিল সার্জন ড. রথিন্দ্রনাথ মজুমদার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মৃধা মো: মুজাহিদুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো: সেলিম রেজা, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: কামাল হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সূপার মীর সাফিন মাহমুদ, চেম্বর অব কমার্সের পরিচালক মো: সফিকুল ইসলামসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।
এছাড়া সকাল ১০টায় দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আলোচনা সভা, রচনা প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বিকেল সাড়ে ৩টায় গজনবী স্টেডিয়ামে ভলিবল ও হ্যান্ডবল প্রতিযোগিতা। আর সন্ধ্যায় আলোচনা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণী।
জয়পুরহাট : সকালে বিএনসিসি, স্কাউটস, রোভার, গার্লস ইন স্কাউটসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন সরকারি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সমন্বয়ে একটি বর্ণাঢ্য আনন্দ র‌্যালি সাকির্ট হাউজ থেকে বের হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে শহীদ ডাঃ আবুল কাশেম ময়দানে শেষ হয়। এখানে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, জন্ম দিবসের কেক কাটা, বঙ্গবন্ধুর জীবনভিত্তিক প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাকির হোসেনের সভাপতিত্বে অনষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এ্যাড: সামছুল আলম দুদু এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মো. রশীদুল হাসান, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান রকেট, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এস এম সোলায়মান আলী, রাজা চৌধুরী, সাবেক অধ্যক্ষ খাজা সামছুল ইসলাম, এ্যাড. নৃপেন্দ্রনাথ মন্ডল পিপি প্রমূখ। জেলা পরিষদের সহযোগিতায় প্রতিবন্ধীদের মাঝে কৃত্তিম পা বিতরণ করে স্থানীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন সংস্থা। এ ছাড়াও শিশুদের রচনা ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার আয়োজন করে জেলা শিশু একাডেমি। এ উপলক্ষে ধর্মীয় উপাসনালয়ে বিশেষ প্রার্থনা ও মোনাজাতের ব্যবস্থা করা হয় ইসলামী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে। শহীদ ডা: আবুল কাশেম ময়দানে জেলা তথ্য অফিসের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর জীবনী ও মহান মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক পুস্তক, আলোকচিত্র ও ডকুমেন্টারী প্রদর্শনের আয়োজন করা হয়। এর আগে জেলা আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনসহ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন জয়পুরহাট-১ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড: সামছুল আলম দুদু ।
চুয়াডাঙ্গা : সকালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। পরে একই স্থান থেকে একটি র‌্যালি বের হয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক ঘুরে শিল্পকলা চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। শিল্পকলা চত্বরে কেক কাটা শেষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে র‌্যালি, আলোচনা সভা, কেক কাটা ও পুষ্পস্তবক অর্পণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক গোপাল চন্দ্র দাস, পুলিশ সুপার মাহাবুবুর রহমান, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ কামরুজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: কলিমুল্লাহ, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ সামসুল আবেদিন খোকন, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান প্রমুখ। অনুষ্ঠানে জেলার বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষক ও ছাত্র ছাত্রীরা উপস্থিত ছিলেন।
মাগুরা : সকাল ৮টায় জেলা প্রশাসনের আয়োজনে স্থানীয় নোমানী ময়দান থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালি রেব হয় । র‌্যালিটি শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষ নোমানী ময়দানে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে আছাদুজ্জামান মিলনায়তনে আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় জেলা প্রশাসক মোঃ আলী আকবরের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর, মাগুরা-২ আসনের সংসদ সদস্য ড. বীরেন শিকদার, পুলিশ সুপার খান মোহাম্মদ রেজোওয়ান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পংকজ কুন্ডু, সাবেক জেলা মুক্তিযুদ্ধা কমান্ডার মোল্যা নবুয়ত আলী। আলোচনা শেষে জেলা শিল্পকলা একাডেমির উদ্যোগে সংগীত, চিত্রকলা, আবৃত্তি, চারুকলা, বাদ্যযন্ত্র শিল্পী, নৃত্যকলাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখায় ১৫ গুণীজনকে সম্মামনা প্রদান এবং বিভিন্ন্ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার তুলে দেন অতিথিরা।
লক্ষ্মীপুর : সকালে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, শিশু সমাবেশ ও আনন্দ র‌্যালিসহ নানা কর্মসূচি পালন করা হয়। এসব কর্মসূচিতে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার শিশু, নারী ও পুরুষ অংশগ্রহণ করেন।
সকাল সাড়ে ৮টায় জেলা কালেক্টরেট ভবন প্রাঙ্গণে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্কস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানানো হয়। পরে জেলা কালেক্টরেট প্রাঙ্গণে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা মিলিত হয়ে শিশু সমাবেশ করে। সকাল ৯টায় একটি বর্ণাঢ্য আনন্দ র‌্যালি বের হয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে পুনঃরায় কালেক্টরেট ভবনের সামনের ড্রীলসেডে এক আলোচনা সভায় মিলিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ সফিউজ্জামান ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন, পুলিশ সুপার আ স ম মাহাতাব উদ্দিন, সিভিল সার্জন ডা. মোস্তফা খালেদ আহমেদ, পৌরসভার মেয়র আবু তাহের, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু, সাধারণ সম্পাদক নুর উদ্দিন চৌধুরি নয়ন প্রমুখ।
মেহেরপুর : জেলা প্রশাসক মো. আতাউল গণির নেতৃত্বে একটি র‌্যালি জেলা প্রশাসন কার্যালয় চত্বর থেকে শুরু হয়ে শহীদ ড. সামসুজ্জোহা পার্কে এসে শেষ হয়। সেখানে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন জেলা প্রশাসনের পক্ষে জেলা প্রশাসক মো. আতাউল গণি, পুলিশ প্রশাসনের পক্ষে পুলিশ সুপার মো. মোস্তাফিজুর রহমান পিপিএম, জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষে জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবদুস সামাদ বাবলু বিশ্বাস, জেলা পরিষদের পক্ষে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম রসুল, পৌরসভার পক্ষে মেয়র মাহফুজুর রহমান রিটন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিটের পক্ষে সাবেক জেলা ইউনিট কমান্ডার বশির আহমেদসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পুষ্পস্তবক দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করে।
পিরোজপুর : তিন দিনব্যাপী শিশু আনন্দ মেলার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেন। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আলোচনায় বক্তব্য রাখেন, বিশেষ অতিথি পুলিশ সুপার সালাম কবির, পিরোজপুর পৌরসভার মেয়র আলহাজ¦ মোঃ হাবিবুর রহমান মালেক, পিরোজপুরের সিনিয়র সাংবাদিক গৌতম চৌধুরী, জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল আহসান গাজী ও প্রেস ক্লাব সভাপতি জহিরুল হক টিটু। আলোচনা সভা শেষে কেক কেটে শিশু আনন্দ মেলার উদ্বোধন করা হয়। পরে শেরে বাংলা পাবলিক লাইব্রেরির আয়োজনে শিক্ষার্থীদের নিয়ে কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।
এর আগে সকালে উপজেলা বঙ্গবন্ধু চত্বরে বঙ্গবন্ধু’র প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন, জেলা প্রশসাক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেন, পুলিশ সুপার সালাম কবির, জেলা আওয়ামীলীগের পক্ষে এ্যাডভোকেট আব্দুল হাকিম হাওলাদার, পৌরসভার পক্ষে পৌর মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হাবিবুর রহমান মালেকসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
টাউন ক্লাব মাঠ প্রাঙ্গনে জেলা প্রশাসন ও জেলা শিশু একাডেমির উদ্যোগে জাতীয় শিশু দিবসের তিন দিনের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে বঙ্গবন্ধু’র উপরে কুইজ, রচনা, আবৃত্তি, যেমন খুশী তেমন সাজো ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা। এছাড়া আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণ। টাউন ক্লাব মাঠে শিশু মেলায় ২১টি স্টলে উপচেপড়া ভিড় ছিল। ইসলামী ফাউন্ডেশন, শেরে বাংলা পাবলিক লাইব্রেরি, স্বাস্থ্য বিভাগ, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর, বেসরকারি সংস্থা উদ্দীপনসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এসব স্টলে বঙ্গবন্ধুর কর্মময় জীবনের বিভিন্ন দিক বিভিন্ন ভাবে তুলে ধরেছে।
বাগেরহাট : জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ, জেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন এবং জেলার বিভিন্ন সরকারী বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের উদ্যেগে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করা হয়। পরে জেলা প্রশাসনের উদ্যেগে শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে স্বাধীনতা উদ্যানে গিয়ে আলোচনা সভায় মিলিত হয়।
এছাড়া দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে দিনব্যাপী কর্মসূচীর মধ্যে ছিল জেলার সকল ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে মিলাদ মাহফিল ও প্রার্থনা, সরকারী শিশু পরিবারে উন্নতমানের খাবার পরিবেশনসহ বাগেরহাট জেলার সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বঙ্গবন্ধুর জীবনীর উপর আলোচনা ও রচনা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এ ছাড়াও বিভিন্ন বেসরকারী প্রতিষ্টান নানা কর্মসূচী পালন করে।
নড়াইল : জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, জেলা পরিষদ, জেলা আওয়ামীলীগ, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকিৃতিকে পুষ্পস্তবক অর্পণ, শিশু সমাবেশ, আনন্দ র‌্যালি, কেক কাটা, দোয়া মাহফিল, আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়। বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ ষ্টেডিয়াম থেকে আনন্দর‌্যালি বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে শিল্পকলা একাডেমি চত্বরে এসে শেষ হয়। পরে কেককাটা ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।
জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সোহরাব হোসেন বিশ^াস, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সুবাস চন্দ্র বোস, সাধারন সম্পাদক নিজাম উদ্দিন খান নিলু, সদর হাসপাতালের তত্ত্ববধায়ক ডাঃ সঞ্জিত কুমার সাহা, সিভিল সার্জন ডাঃ আসাদুজ্জামান মুন্সী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ ইয়ারুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(রাজস্ব) কাজী মাহাবুবুর রশীদ, বিভিন্ন সরকারি-বে-সরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারি, শিক্ষক-শিক্ষার্থী, অভিভাবকসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।
হবিগঞ্জ : সকাল সাড়ে ৯টা থেকে সাড়ে ১০টা পর্যন্ত জেলা শহরের টাউন হল রোডস্থ জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন ও স্থানীয় সংসদ সদস্যের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। পরবর্তীতে একে একে শ্রদ্ধা জানায় সরকারি-বেসরকারি অর্ধশতাধিক প্রতিষ্ঠান।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট মোঃ আবু জাহির এমপি, জেলা প্রশাসক মাহমুদুল কবির মুরাদ, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্য, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কদ্দুছ আলী সরকার, হবিগঞ্জ এলজিইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী আবু জাকের মোহাম্মদ সিকান্দার, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক মো. সফিউল আলম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) নুরুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ফজলুল জাহিদ পাভেল, সাবেক পৌর চেয়ারম্যান শহীদ উদ্দিন চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট লুৎফুর রহমান তালুকদার, প্রচার সম্পাদক অনুপ কুমার দেব মনা, উপ প্রচার সম্পাদক আব্দুল মোছাব্বির বকুল, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাইদুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মহিবুর রহমান মাহী প্রমুখ।
এর আগে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালনের মধ্য দিয়ে জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়। এর আগে মোনাজাত পরিচালনা করেন হবিগঞ্জ বায়তুল আমান জামে মসজিদের খতিব মুফতি মাওলানা আলমগীর হোসাইন সাইফী। পরে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি শহর প্রদক্ষিণ করে।
শরীয়তপুর : কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের প্রথমে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পরে পর্যায়ক্রমে জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল, জেলা পুলিশ, জেলা আওয়ামীলীগ, বিভিন্ন রাজনৈতিক-সামাজিক সংগঠনসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এর পূর্বে সদর উপজেলা চত্বর থেকে শিশু সমাবেশ ও একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করে শহরের গুরুত্বপুর্ণ সড়ক প্রদকক্ষিণ শেষে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এসে শেষ হয়।
সকাল ৯ টায় জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে মিলাদ, দোয়া ও কেক কেটে দিবসটি উদযাপন করা হয়। এছাড়াও দিবস উপলক্ষে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, সঙ্গীত প্রতিযোগিতা, সুন্দর হাতের লেখা প্রতিযোগিতা, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে মহান মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক পুস্তক ও ডকুমেন্টারী প্রদর্শনী, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, আলোচনা সভা এবং সকল ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে বিশেষ প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হবে।
খাগড়াছড়ি : সকালে খাগড়াছড়ি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ থেকে একটি আনন্দ র‌্যালি বের করা হয়। এতে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি দপ্তর কর্মকর্তা, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী অংশ নেয়। র‌্যালিটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে টাউন হল প্রাঙ্গনে এসে শেষ হয়। সেখানে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি ভাস্কর্যে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো শেষে কেক কাটা হয়। পরে টাউন হল প্রাঙ্গনে এক আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্টানের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন শরনার্থী পুনর্বাসন বিষয়ক টাস্কফোর্সের চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি। খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক মো: শহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে এতে আরো উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান খগেশ্বর ত্রিপুরা, পুলিশ সুপার মোহা: আহমার উজ্জামান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো: চাহেল তস্তরী, পৌর মেয়র মো: রফিকুল আলম, জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা উষানু চৌধুরী, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার প্রমুখ। আলোচনা সভা শেষে দিনটি উপলক্ষে আয়োজিত রচনা ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ করা হয়।
পঞ্চগড় : এ উপলক্ষে সকালে পঞ্চগড় (শিশু একাডেমি) সার্কিট হাউজের সামনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালে পুস্প স্তবক অর্পণ করা হয়। এ সময় জেলা প্রশাসন ও আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
পরে ডিসি অফিস চত্বর থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে পঞ্চগড় সরকারী অডিটোরিয়ামে গিয়ে শেষ হয়।
এতে জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দীন আহম্মদ, নবনির্বাচিত জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার সাদাত স¤্রাট, নবনির্বাচিত উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আমিরুল ইসলাম,মুক্তিযোদ্ধা,আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মী ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।
র‌্যালি শেষে সরকারী অডিটোরিয়ামের মুক্ত মঞ্চে কেক কাটা হয়।
সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পাঠাগারের অফিস চত্বর থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালীটি শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই জায়গায় এসে শেষ হয়। পরে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
আলোচনা সভায় ডুডুমারী গ্রাম উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নামিউদ্দীন আহম্মদের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, পঞ্চগড় বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পাঠাগারের সভাপতি মোঃ আসাদুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ কোরবান আলী।
এসময় ৫টি উপজেলার পঞ্চগড় বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পাঠাগারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

(বাসস)


Spread the love

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন