Monday, October 14, 2019 2:39 pm
Spread the love

ফুরিয়ে এসেছে শীতকাল। তাপমাত্রার পারদ ইতিমধ্যেই চড়তে শুরু করেছে। আবহাওয়া পরিবর্তনের ফলে ঠান্ডা-গরমে ঘরে ঘরে জ্বর-জ্বালা শুরু হয়েছে। চিকিত্সকের পরামর্শ মেনে চললে আর সঙ্গে ওষুধপত্র নিয়মিত খেলে জ্বর ২-৩ দিনেই সেরে যায় ঠিকই কিন্তু খাওয়া-দাওয়ার ইচ্ছা একেবারেই থাকে না। কারণ, জ্বর থেকে সেরে ওঠার পর অন্তত দিন তিনেক মুখে কোনও খাবারেরই তেমন স্বাদ পাওয়া যায় না! কিন্তু পরিমাণ মতো খাওয়া-দাওয়া না করলে শরীর সুস্থ হবে কী করে! তাই জেনে নিন জ্বরের পর দ্রুত মুখের স্বাদ ফিরিয়ে আনার কয়েকটি অব্যর্থ উপায়…

১) লবঙ্গ আর দারচিনি গুঁড়ো করে নিয়ে সেই গুঁড়ো ১ চামচ করে মুখে রাখুন। মুখের তেতো ভাব কেটে যাবে। মুখে শুধু লবঙ্গ রেখে চিবোতেও উপকার পাবেন।

২) এক গ্লাস জলে ১ চামচ নুন দিয়ে গার্গল আর কুলকুচি করুন। এতে মুখের ব্যাকরেটিয়া মরে গিয়ে তেতো ভাব কেটে যাবে।

৩) মুখের তেতো ভাব কাটিয়ে স্বাদ ফেরাতে পুদিনা অত্যন্ত কার্যকর! মুখে দু’-একটা পুদিনা পাতা রেখে দেখুন, মুখের তেতো ভাব কেটে যাবে।

৪) জ্বরের পর লেবু জাতীয় ফল ফল যেমন শরীরের জন্য উপকারী, তেমনই মুখের তেতো ভাব কাটিয়ে স্বাদ ফেরাতেও অত্যন্ত কার্যকর! বাতাবি লেবু, মোসাম্বি, কমলালেবু জাতীয় ফল খেতে পারলে মুখের তেতো ভাব কেটে যাবে।

৫) জ্বরের পর দিনে অন্তত ৭-৮ গ্লাস জল খান। জল পাকস্থলি থেকে টক্সিক অ্যাসিড পরিষ্কার করে মুখ আর জিভের তেতো ভাব কাটাতে সাহায্য করে।

৬) মুখের তেতো ভাব কাটাতে সবচেয়ে আগে প্রয়োজন মুখের ভিতরে জমে থাকা ব্যাকটেরিয়া দূর করা। তাই জ্বরের পর দিনে অন্তত ২ বার ভাল করে দাঁত মাজুন। জিভ আর মাড়ি পরিষ্কার রাখুন। উপকার পাবেন।

৭) বেকিং সোডা মুখের ব্যাকরেটিরায় দূর করতে অত্যন্ত কার্যকর! টুথপেস্টের সঙ্গে সামান্য বেকিং সোডা মিশিয়ে সেটা দিয়ে দাঁত মাজুন। সামান্য পরিমাণে বেকিং সোডা আধা গ্লাস জলে গুলে সেই জল দিয়ে কুলকুচি করলেও দ্রুত উপকার পাওয়া যাবে।


Spread the love

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন