Monday, September 23, 2019 9:15 pm
Spread the love

মোবাইল ফোন থেকে শুরু করে গয়না বা নগদ টাকা অথবা গাড়ি চুরির অভিযোগ প্রতিদিনই জমা পরে পুলিশের কাছে।

বাড়ির পোষ্য কুকুর বা গরু চুরির ঘটনা নিয়েও পুলিশের দ্বারস্থ হওয়ার খবর পাওয়া যায়।

কিন্তু এ যে একেবারে অন্য রকম চুরি!

হৃদয় হরণের ঘটনা এটা!!

সেই ‘চুরি’র ঘটনা জানাতেই ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যের পুলিশের কাছে দিন কয়েক আগে হাজির হয়েছিল এক যুবক।

কিন্তু হৃদয় চুরির অভিযোগ কোন ধারায় পড়বে, কাকে ধরা হবে, কীভাবে হৃদয় ফেরত দেওয়া সম্ভব, কিছুই যে আইনে নেই!!

অনেক ভেবে চিন্তেও কোনও সমাধান বের করতে না পেরে থানার দারোগা ফোন করেছিলেন নাগপুর পুলিশের বড়কর্তাদের কাছে।

তারা জানান, “এরকম কোনও চুরির সমাধান সম্ভব না।”

ঘটনা কী?

মহারাষ্ট্রের নাগপুর শহরের পুলিশ কমিশনার ভূষণ কুমার উপাধ্যায় বলছিলেন, “২১-২২ বছরের একটি ছেলে দিন কয়েক আগে থানায় হাজির হয়েছিল। অফিসারদের সে বলে যে একটি মেয়ে নাকি ওই ছেলের হৃদয় চুরি করেছে। পুলিশ সেই চুরি যাওয়া হৃদয় ফেরত এনে দিক!”

“পুরোপুরি প্রেমঘটিত ব্যাপার এটা। এরকম কোনও অভিযোগ নেওয়া যায় নাকি? আইনের কোন ধারায়, কার বিরুদ্ধে কী মামলা করব আমরা?”, হাসতে হাসতে বলছিলেন পুলিশ কমিশনার।

ওই যুবকের নাম, বা কোন মেয়ে তার হৃদয় চুরি করেছে – সেই তথ্য দিতে চায় নি পুলিশ।

তবে জানিয়েছে ওই যুবককে দেখে তাদের মনে হয়েছিল সে কিছুটা মানসিকভাবে বিভ্রান্ত।

তাই বুঝিয়ে শুনিয়ে তাকে বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।


Spread the love

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন